১২তম তারাবীহ: ১৫তম পারার মর্মার্থ

ইসরা অর্থ রাত্রে নিয়ে যাওয়া। এই সূরায় মে’রাজের কাহিনীর উল্লেখ আছে। আমাদের নবী-মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে রাতের বেলা মসজিদে হারাম থেকে মসজিদে আকসায় অতঃপর সেখান থেকে আসমানসমূহে নিয়ে যাওয়া হয়ে ছিল। এই সূরায় সেই কাহিনীর প্রতি ইঙ্গিত আছে। তাই সূরাটিকে ‘ইসরা’ বলা হয়। ঘটনাটি মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর বিরাট বড় মু’জিযা। আল্লাহ তাআলা এর মাধ্যমে নবীজীকে সম্মানিত করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে জাগ্রত অবস্থায় । যদি স্বপ্নে হতো তাহলে এত গুরুত্বের সাথে কুরআন কারীমে তা উল্লেখ করা হত না। আর না মুশরিকরা একে মিথ্যা বলত। কেননা স্বপ্নের মাঝে তো মানুষ এর চেয়ে বিস্ময়কর বিষয় দেখে থাকে এবং কেউই একে মিথ্যা বলে না। সূরাটির প্রথম আয়াতে এই ঘটনার প্রতিই ইঙ্গিত রয়েছে।

মে’রাজের ঘটনা ছাড়া যে সকল গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এই সূরায় আলোচিত হয়েছে তা নিম্নে উল্লেখ করা হল :

বনী ইসরাঈলদের পূর্বেই বলে দেয়া হয়েছিল যে, তারা দুইবার শাম দেশে বিশৃংখলা সৃষ্টি করবে। দোনবারই আল্লাহ তাআলা তাদের উপর সাজা স্বরূপ তাঁর বান্দাদেরকে চাপিয়ে দেন। প্রথমবার যখন তারা তাওরাতের বিরোধিতা করে এবং শুআইব (আ) এর মত নবীকে অন্যায়ভাবে হত্যা করে তখন তাদের ওপর বুখতে নসর ও তার বাহিনীকে চাপিয়ে দেয়া হয়েছিল। তারা আলেমদের কে এবং সমাজের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গকে হত্যা করে ফেলে। তাওরাতে আগুন লাগিয়ে দেয়। বাইতুল মাকদিসকে বিরান করে দেয় এবং অনেক ইসরঈলীকে আটক করে নিয়ে যায়।

পুরো পড়তে ক্লিক করুন: ১৫তম পারা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *