প্রিয় নবীজি ﷺ -এর ভালোবাসা বৃদ্ধি ও সুন্নতের অনুসরণ

রাসূলে আকরাম ﷺ -এর ভালোবাসা ও অনুসরণ যে আল্লাহ তাআলাকে পাওয়ার একমাত্র পথ তা বার বার চিন্তা করা উচিত। রাসূলে আকরাম ﷺ -এর শাফাআত (সুপারিশ) ছাড়া কেয়ামতের দিন সবাই উপায়হীন হবে! তার [ﷺ] উম্মত হিসেবে এ কথা বার বার চিন্তা করতে হবে যে, প্রিয় নবীজি ﷺ আমাদের জন্য অপরিসীম কষ্ট ও ত্যাগ স্বীকার করেছেন।

রাসূলে আকরাম ﷺ-এর প্রতি দরূদ শরীফ পড়া বাড়িয়ে দিন। চলতে ফিরতে প্রতিদিন বেশি করে দরূদ শরীফ পাঠ করুন। অযু থাকুক বা না থাকুক, সময়-সুযোগে দরূদ শরীফ পড়ুন। আমাদের এই একটিই উপায় রয়েছে প্রিয় নবীজি ﷺ কে কোনো হাদিয়া পাঠানোর এবং এটা আল্লাহ তাআলার অশেষ রহমতই বটে! প্রতিটি উম্মতের উচিত প্রতিদিন অত্যন্ত ভালোবাসাসহকারে কিছু সময় প্রিয় নবীজি ﷺ-এর প্রতি দরূদ প্রেরণ করা। প্রিয় নবীজি ﷺ-এর রওজার কাছ থেকে দরূদ পাঠ করলে উনি শুনেন, জবাব দেন। আর দূর থেকে কেউ দরূদ পাঠ করলে নিয়োজিত বিশেষ ফেরেশতাগণ তার [ﷺ] কাছে আমাদের পঠিত দরূদ শরীফ পৌঁছে দেন। এটা শুনতে সহজ, কিন্তু কত বড় সৌভাগ্যের বিষয়!

আমাদের আকাবিরীনদের লিখিত অনেক সীরাত ও সুন্নত বিষয়ক বই রয়েছে। সেগুলো সংগ্রহ করে আমাদের সবারই পড়া উচিত। এর ফলে প্রিয় নবীজি ﷺ-এর ভালোবাসা বৃদ্ধি পাবে এবং সুন্নতের অনুসরণ সহজ হবে ইনশাআল্লাহ।

দুনিয়ার সব ফ্যাশন এবং স্টাইল কবরে যাওয়ার আগেই বেকার প্রমাণিত হবে। রাসূলে আকরাম ﷺ -এর সুন্নতের অনুসরণই হবে চির সফলতার পুঁজি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *