পবিত্র জীবনী (৩য় পাতা)

আবুদ্দারদা রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩২ হিজরী : ৬৫৩ খৃস্টাব্দ)

আবুদ্দারদা রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩২ হিজরী : ৬৫৩ খৃস্টাব্দ)

আরোহী পথিকের পাথেয়ের ন্যায় সামান্য সম্পদের যিনি মালিক। নিজেকে তিলে তিলে গড়েছেন। নিকষিত করেছেন বহু সাধনায়। কষ্টকর বিপদাপদ যাঁকে করেছে আরও পাকাপোক্ত। হাতের তালুতে দান-দক্ষিণার কোমলতা। দু’হাতের আঙ্গুল বেয়ে উপচে পড়ে বদান্যতা। রবের প্রতি বিনয় বশত যিনি দারিদ্র্যকে ভালোবেসেছিলেন। তাকওয়ার কীলক দিয়ে যিনি বন্ধ করেছিলেন খায়েশ ও প্রবৃত্তির দুয়ার। যাঁর কথায় শ্রোতৃম-লীর...
তালহা ইবনে উবাইদুল্লাহ রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৬ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

তালহা ইবনে উবাইদুল্লাহ রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৬ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

রাসূলে আকরাম ﷺ-এর জীবনকে যিনি নিজের জীবন দিয়ে খরিদ করেছিলেন। জীবদ্দশায় যিনি শাহাদাতের মর্যাদা নিয়ে ঘুরাফেরা করেছিলেন। তিনি জীবন্ত শহীদ। সমুদয় সম্পদ যিনি দান করেছিলেন খোদার রাহে। ইতিহাস যাঁর জন্মসালটি সংরক্ষণ করেছে। যাঁর ইসলাম গ্রহণের গুঞ্জন বজ্রের ন্যায় কুফর ও শিরককে প্রকম্পিত করেছে। তিনি তালহা। কল্যাণের আধার। অগ্রগামী ও প্রবীণ সাহাবা কেরামের একজন। যাঁরা ঈমান ও ব...
সালমান ফারসী রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৬ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

সালমান ফারসী রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৬ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

সালমান আমাদের বংশের। ইসলামের মেহরাব থেকে ইতিহাস গড়া এক ব্যক্তি। এক মাবুদ, আসল বাস্তবতার সন্ধানে বের হয়ে খোঁজে পাননি বাইবেলে। ইঞ্জিল ও তাওরাতে সত্যের নির্যাস না পেয়ে খুঁজতে থাকেন সত্যের সন্ধানে। অবশেষে সেই সত্য, মহামাবুদের খোঁজ পান ইসলামে। ঈমানের চেরাগে আল্লাহ্ তাআলা যাঁর হৃদয়কে আলোকিত করেছিলেন। তিনি সালমান রা.। যিনি নিজেকে সালমানুল ইসলাম বলতেন। ‘আ...
হুযাইফা ইবনুল ইয়ামান রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৬ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

হুযাইফা ইবনুল ইয়ামান রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৬ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

মুখে উচ্চারণ করার আগে যাঁর হৃদয় ছিল ঈমানে টইটম্বুর। মহানবী ﷺ যাঁকে মুহাজির বা আনসার সাহাবা কেরামের অন্তর্ভুক্ত হওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার সুযোগ প্রদান করেছিলেন। কপটতার বিরুদ্ধে দ্রোহ ও দ্রোহিতাই যাঁর সহজাত স্বভাব। রাসূলুল্লাহ্ ﷺ-এর মনের গোপন কথা যিনি সযত্নে গোপন রাখতেন। গোপন তথ্য যিনি পেটে রাখতেন গভীর দায়িত্ববোধ নিয়ে। তিনিই একমাত্র ব্যক্তি যাঁর কাছে মহানবী ﷺ মু...
আবূ হুরায়রা রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৫৯ হিজরী : ৬৭৯ খৃস্টাব্দ)

আবূ হুরায়রা রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৫৯ হিজরী : ৬৭৯ খৃস্টাব্দ)

যাঁর হৃদয়ে ছিল একটি চেরাগ। রাসূলে আকরাম ﷺ-এর বাণীর আলোয় যে চেরাগটি ছিল দীপ্তিমান ও আলোকিত। যাহিদ ও দুনিয়াত্যাগীদের শীর্ষে যাঁর নামটি ইতিহাসের সোনার আখরে লিখা ছিল। পরহেযগারি ও দুনিয়ামুখিতা যে ব্যক্তিত্বে প্রতিযোগিতা করতো। দুনিয়ার দেয়ালে লেগে ছিল যাঁর যুহদ। জাগতিক মোহ যাঁকে স্পর্শ করেনি। যাঁর স্বভাব ও প্রকৃতিতে ছিল সময়ের পূর্ণ জ্ঞান। তিনি আব্দুর রহমান ...
আব্দুল্লাহ্ ইবনে উমর ইবনুল খাত্তাব রাযিআল্লাহু আনহুমা (মৃ. ৭৩ হিজরী : ৬৯৩ খৃস্টাব্দ)

আব্দুল্লাহ্ ইবনে উমর ইবনুল খাত্তাব রাযিআল্লাহু আনহুমা (মৃ. ৭৩ হিজরী : ৬৯৩ খৃস্টাব্দ)

যাঁর শিক্ষক স্বয়ং রাসূলে আকরাম ﷺ। যাঁর পিতা হলেন হযরত উমর ইবনুল খাত্তাব রা.। যাঁর দৃষ্টিতে সম্পদ ছিল সামান্য সেবক, মনিব হিসেবে অর্থের বিবেচনা ছিল না। আপাদমস্তক ছিল যাঁর যুহদ ও দুনিয়াবিমুখতা। বাল্যকালে যিনি গ্রহণ করেছিলেন ইসলামের ঝিরঝিরে বাতাস। ছেলেবেলায় প্রাণভরে উপভোগ করেছিলেন সুশীতল সমীরণ। শৈশবে পেয়েছিলেন ইসলামের সুঘ্রাণ। বাবা হযরত উমরের হাত ধরে মদ...
হারিম ইবনে হাইয়্যান রহমাতুল্লাহি আলাইহি (মৃ. ২৬ হিজরী : ৬৪৭ খৃস্টাব্দের পর)

হারিম ইবনে হাইয়্যান রহমাতুল্লাহি আলাইহি (মৃ. ২৬ হিজরী : ৬৪৭ খৃস্টাব্দের পর)

যাঁর সমাধিতে আকাশ কেঁদেছিল। মনেপ্রাণে যিনি আল্লাহ্ প্রতি মনোনিবেশী ছিলেন। ফলশ্রুতিতে আল্লাহ তাআলা যাঁর ভালোবাসা মুমিনদের হৃদয়ে রেখাপাত করে দেন। যাঁর শিরা-উপশিরায় নবী ও রাসূলদের যুহদ ও আখেরাত-অনুরাগ সদা বিরাজমান ছিল। জীবিত থেকেও যিনি ধারণ করেছিলেন মৃতের রূপ ও হালত। আগেকার এবং অগ্রগামী সাধক ও মনীষীগণ যাঁকে নিয়ে ঈর্ষা করেন। নিজের রক্ত ও অশ্রু দিয়ে যিনি পৃথিবীকে সিঞ্চিত...
আমর ইবনে উতবা রহমাতুল্লাহি আলাইহি (মৃ. ৩২ হিজরী : ৬৫৩ খৃস্টাব্দ)

আমর ইবনে উতবা রহমাতুল্লাহি আলাইহি (মৃ. ৩২ হিজরী : ৬৫৩ খৃস্টাব্দ)

নামাযের মুসল্লায় দাঁড়িয়ে থেকে রাত জাগা যাঁর খুব পছন্দনীয়। রাতের আঁধার ভেঙে যিনি রোনাজারি করতেন। যাঁর দোয়া ছিল রহমতের চাবিকাঠি, রুকু ছিল রাতের চেরাগ এবং রোযা ছিল দিবসের আহার। অন্যকে ভয় করা যিনি আল্লাহ সকাশে লজ্জা বোধ করতেন। ইবাদতগুজার ও দরবেশ, অতি বিনয়ী ও অনুগত। তিনি আমর ইবনে উতবা ইবনে ফারকদ আস্সুলামী। কুফা নগরীর আবেদ। ইবাদত-বন্দেগীতে মশগুল থাকায় যিন...

   ৩          ১০ ১১ ১২ ১৩