বই পরিচিতি (আর্কাইভ)

উলূমুল কুরআন

বইয়ের নাম: উলূমুল কুরআন

লেখক: মুফতী তাকী উসমানী

অনুবাদক: মুফতী হায়াত মাহমুদ

প্রকাশনী: ইসলামিক ফাউন্ডেশন

 
পরিচিতি:
 

কুরআন বোঝার জন্য অশেষ জ্ঞানের প্রয়োজন হয়! সব মানুষের সাধ্যে নয়। তবে এর অর্থ এই নয় যে আল্লাহ তা'আলা সাধ্যের বাইরে আমাদের ওপর কিছু চাপিয়ে দিয়েছেন। বরং এর অর্থ হলো, কুরআনকে বোঝার জন্য আজীবন সাধনা করতে হয়। কুরআন অবতরনের মৌলিক বিষয়সমূহ, কুরআনের হরফ এবং তেলাওয়াত, কুরআন সংরক্ষনের ইতিহাস, কুরআনের আয়াত সম্পর্কে অমুসলিমদের সন্দেহ ও তা নিরসন, কুরআনের তরজমা ও তাফসীরের মৌলিক আলোচনা, হেদায়েতের জন্য কুরআনের গুরুত্ব প্রভৃতি বিষয়গুলো, যেগুলো প্রত্যেক মুসলমানের জানা উচিত এবং আমলের সাথে সম্পর্কিত, এগুলো নিয়েই উলূমুল কুরআন বইটি লিখিত। প্রায় ৪৫০ পৃষ্ঠার বইটি অধ্যায়ন করলে একজন মুসলমান কুরআন মাজীদের মৌলিক বিষয় সম্পর্কে মোটামুটি একটি সন্তুষজনক পর্যায়ের জ্ঞান অর্জন করতে পারবে ইনশআল্লাহ।

প্রাপ্তিস্থান: ইসলামিক ফাউন্ডেশন বই বিক্রয় কেন্দ্র, বাইতুল মুকারম

অন-লাইন:
খিদমাহশপ
হারামাইন শরীফাইনের ইতিহাস

বইয়ের নাম: হারামাইন শরীফাইনের ইতিহাস

লেখক: ডাঃ মুহাম্মাদ ইলিয়াস আব্দুল গনী

অনুবাদক: মুশায়খুল হাদীস আল্লামা জা'ফর আহমাদ

প্রকাশনী: মাকতাবাতুল আযহার 

পরিচিতি:

কা’বা ঘর সমগ্র বিশ্বের জন্যে হিদায়াত সরূপ। আর মসজিদে নববী তথা মদীনা শরীফ সমস্ত মুসলমানদের প্রাণ কেন্দ্র। এ দুয়ের সান্নিধ্য সমস্ত মুমিন পুরুষ ও মহিলা পেতে চায়। এর ইতিহাসও জানতে চায়। আমরাও একই অবস্থা। এ সম্পর্কে অনেকেই অনেক বই রচনা করেছেন। তন্মধ্যে আমার নিকট এবং অনেকেরই নিকট ডাঃ মুহাম্মাদ ইলিয়াস আব্দুল গনী এর লিখিত তারিখে “মক্কাতুল মুকার্‌রমা ও তারিখে মসজিদুন্‌ নববী” নামক গ্রন্থ দুটি অনেক সুন্দর মনে হয়। আরব দেশেও বহুল প্রচারিত হয়। তাই আমি বিগত প্রায় ৮ বৎসর পূর্বে এ দুটি বইয়ের অনুবাদ করি। ছাপানোর পর বেশ গ্রহণীয় হয়। এর মধ্যে প্রথম এডিশন শেষ হয়ে যায়। পাঠকের সুবিধাতে উভয় গ্রন্থ 'হারামাইন শরীফাইনের ইতিহাস' নামে এক সাথে প্রকাশ করা হল। (অনুবাদকের ভূমিকা থেকে)

প্রাপ্তিস্থান: আদর্শ নগর, মধ্যবাড্ডা, ঢাকা-১২১২

অন-লাইন:
খিদমাহশপ
বাংলা ফয়যুল কালাম: বিষয়ভিত্তিক হাদীস

বইয়ের নাম: বাংলা ফয়যুল কালাম: বিষয়ভিত্তিক হাদীস

লেখক: মুফতী আযম আল্লামা ফয়যুল্লাহ রহ.

অনুবাদক: মুফতী ফালাহুদ্দীন, মুফতী ফজলুদ্দীন শিবলী

প্রকাশনী: আল-এছহাক প্রকাশনী

 
পরিচিতি:
এটি মূলত একটি আরবী গ্রন্থ। মুফতী আযম শায়খ ফয়যুল্লাহ রহ. (১৩১০-১৩৯৬ হিজরী)-এর সংকলিত হাদীস গ্রন্থ। ৪৮০ পৃষ্টার হাদীস গ্রন্থটিতে বিভিন্ন বিষয় শিরোনামে সহজ-সরলভাবে হাদীস বর্ণিত হয়েছে। বাংলা অনুবাদ সাবলীল প্রতিটি হাদীসের সাথে মূল সুত্র দেয়া আছে। সাধারণ মুসলমানদের হাদীস অধ্যায়নের জন্য একটি উপকারি গ্রন্থ। কারণ, হাদীসগুলোর অর্থের সাথে প্রয়োজনীয় সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা দেয়া আছে। বইটির ছাপার মানও ভালো।

 

প্রাপ্তিস্থান: ইসলামি টাওয়ার, ১১ বাংলাবাজার, ঢাকা-১০০

অন-লাইনে দ্বীনি বই কেনার জন্য:
খিদমাহশপ

Demo Title

Demo content

বড়দের নির্বাচিত বাণী ও বিস্ময়কর ঘটনাবলী

বইয়ের নাম: বড়দের নির্বাচিত বাণী ও বিস্ময়কর ঘটনাবলী

লেখক:  মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী 

সংকলক: মাওলানা মুহাম্মাদ ইসহাক 

অনুবাদক: মাওলানা মুহাম্মাদ আবদুল্লাহ মা'রূফ

প্রকাশনী: মাকতাবাতুল আশরাফ

পরিচিতি:

ইসলামের ইতিহাসে যারা বরেন্ন হয়েছেন তাদের বাণী পরবর্তী উম্মতের জন্য বিশেষ উপকারি। নেক মানুষের সংস্পসের মতই তাদের কথা ও লেখনিগুলো আমাদের জীবনে বিরাট ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। আমাদের উচিত ঐ সব পূর্বসুরীদের জীবনী, কাজ, ঘটনা বার বার পড়ে নিজের জীবনে তাদের গুণগুলো প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করা। প্রত্যেক যুগের আলেমগণ এই বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়েছেন। প্রত্যেক মুমিন ব্যক্তির উচিত কুরআন এবং হাদীস পাঠের পাশাপাশি বরেণ্ণ আলেমগণের লেখা যত্ন সহকারে অধ্যায়ন করা। এর মাধ্যমে মূলত সাধারণ উম্মতগণ কুরআন, হাদীস ও সিরাতকে আরও কাছে থেকে জানার ও বোঝার সুযোগ পেয়ে থাকে।

উনবিংশ এবং বিংশ শতাব্দীতে আমাদের ভারতবর্ষে অনেক বড় আলেমগণ এবং বুর্যূরগানে দ্বীন আবিভূত হয়েছিলেন। উনাদের মাধ্যমে এই সময়টিতে অবিশ্বাস দ্বীনের কাজ হয়েছিল - যার বরকত উম্মত কেয়ামত পর্যন্ত ভোগ করবে ইনশাআল্লাহ। এরকম ১১জন বিশিষ্ট আল্লাহওলা মানুষের বাণী ও ঘটনাসম্বলিত চমৎকার একটি সংকলন এই বইটি।

প্রাপ্তিস্থান: ইসলামি টাওয়ার, ১১ বাংলাবাজার, ঢাকা-১০০

ওয়েবসাইট: www.islamiakutubkhana.net

অন-লাইনে দ্বীনি বই কেনার জন্য:

খিদমাহশপ

 

আল কুরআনের মর্মকথা

বইয়ের নাম: আল কুরআনের মর্মকথা

লেখক: মাওলানা মুহাম্মদ আসলাম শেখপুরী রহ. [পাকিস্থান

অনুবাদক: মুফতি রাশেদুর রহমান

প্রকাশনী: আলহাজ মাওলানা মুহাম্মদ মোস্তফা

পরিচিতি:

শায়খ মুহাম্মাদ আসলাম শেখপুরী রাহমাতুল্লাহি আলাইহি 'খোলাসাতুল কুরআন' নামে পবিত্র কুরআন মাজীদের চমৎকার একটি গ্রন্থ রচনা করেছেন। পবিত্র কুরআনের কোন্ সূরা এবং কোন্ পারায় কী আলোচিত হয়েছে তারই 'খোলাসা' বা সারাংশ খুবই আকর্ষণীয় ও সহজভাবে উপস্থাপিত হয়েছে বইটিতে। সারাংশ বা সারমর্মগুলো পারা অনুযায়ী ধারাবাহিকভাবে উপস্থাপিত হয়েছে।

আমাদের দেশের নবীণ ও সুযোগ্য একজন আলেম মাওলানা রাশেদুর রহমান বইটি তরজমা করে উম্মতের বিশেষ উপকার করেছেন।

অল্প সময়ে পবিত্র কুরআনের বিষয়বস্তুর সাথে পরিচিতি লাভের জন্য খুবই উপকারি একটি বই এটি; বইটি অধ্যায়নে একদিকে আমাদের ঈমান বৃদ্ধি পাবে, অন্যদিকে আমাদের জ্ঞানও আমল উৎসাহ বৃদ্ধি পাবে ইনশাআল্লাহ!

প্রাপ্তিস্থান: ২৮/এ, প্যারিদাস রোড, বাংলাবাজার, ঢাকা-১০০

ওয়েবসাইট: www.islamiakutubkhana.net

অন-লাইনে দ্বীনি বই কেনার জন্য:
খিদমাহশপ

 

বিশ্ববিখ্যাত নয়জন মুহাদ্দিস

বইয়ের নাম: বিশ্ববিখ্যাত নয়জন মুহাদ্দিস

লেখক: শায়খ সালীমুল্লাহ খান

অনুবাদক: মাওলানা মুহাম্মাদ জালালুদ্দীন

প্রকাশনী: মাকতাবাতুল আশরাফ 

পরিচিতি:
সুবিখ্যাত এবং অবিস্মরণীয় নয়জন মুহাদ্দিস: ইমাম বুখারী, ইমাম মুসলিম, ইমাম নাসাঈ, ইমাম আবু দাউদ, ইমাম তিরমিয়ী, ইমাম ইবনে মাজা, ইমাম মালেক, ইমাম মুহাম্মাদ এবং ইমাম তহাবী (সবার উপর আল্লাহ তাআলা বিশেষ রহমত বর্ষিত করুন!) এর সংক্ষিপ্ত পরিচয়, বিশেষ গুণাবলী, ইলমী যোগ্যতা, হাদীস শাস্ত্রে তাদের বিশেষ অবদান নিয়ে লিখিত ও সংকলিত এ বইটি। বর্তমান যুগের জ্ঞানপিপাসু মুসলমানদের জন্য একটি উপকারি গ্রন্থ।

বিষয়বস্তু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ একটি শ্রেণী কোনো কোনো পূর্বসূরী সম্পর্কে হয় বাড়াবাড়ি করছে অথবা ছাড়াছাড়ি। আমাদের দায়িত্ব যেকেনো প্রান্তিকতামুক্ত থেকে ভারসাম্যপূর্ণ মধ্যমপন্থা অবলম্বন। সুবিখ্যাত মুহাদ্দিসগণ কত ত্যাগ ও কষ্ট স্বীকার করে পবিত্র হাদীস সংকলন ও সংরক্ষণ করেছেন সেটা জেনে তাদের প্রতি যথার্থ শ্রদ্ধা ও আস্থা স্থাপন অত্যন্ত জরুরী। কারণ ইসলামের মধ্যে সন্দেহ চলে আসার জন্য এসব মহামনীষীদের ওপর অনাস্থা সৃষ্টিই যথেষ্ট (আল্লাহ'র আশ্রয় চাইছি)! একশ্রেণীতো এমনও রয়েছে যে হাদীসকে শরীয়তের মূল উৎস মানতেই তারা নারাজ। শেষোক্ত শ্রেণীর ঈমান যে চলে গিয়েছি সেটা বলাই বাহুল্য!

এই মহান পূর্বসূরীদের জীবনী আন্তরিকতার সাথে অধ্যায়ন করে আমরা আমাদের ঈমান ও ইসলামকে সংরক্ষণে সচেষ্ট হই!

 

প্রাপ্তিস্থান: ইসলামি টাওয়ার, ঢাকা বাংলাবাজার ১১০০

ওয়েবসাইট: http://maktabatulashraf.com/

অন-লাইনে দ্বীনি বই কেনার জন্য:

খিদমাহশপ

 

রাসূল ﷺ-এর যুগের বিরল ঘটনাবলী

বইয়ের নাম: রাসূল ﷺ-এর যুগের বিরল ঘটনাবলী

লেখক: সৈয়্যদ মোহাম্মদ জহীরুল হক

প্রকাশনী: দারুল কিতাব

প্রাপ্তিস্থান: ৫০ বাংলাবাজার, ঢাকা ১১০০

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

বইটির লেখক নিজেই বইটির ভূমিকায় লিখেছেন: "রাসূল ﷺ-এর যুগের বিরল ঘটনাবলী গ্রন্থটিতে আমরা ইসলামের প্রারম্ভিক যুগের এমনই কিছু বিরল ঘটনা ইতিহাসের পাতা থেকে কুড়িয়ে এনে পাঠক সমাজের সামনে তুলে ধরার চেষ্ট করেছি। আমাদের বিশ্বাস ঘটনাগুলো পড়ে, হৃদয়ঙ্গম করার চেষ্টা করলে আমাদের ঈমানী চেতনা উদ্দীপ্ত হবে এবং ইসলাম ও রাসূলে কারীম ﷺ-এর অনুরাগ ও মহব্বত আমাদের ইহ ও পরকালীন সফলতার পথ সুগম করবে।"

তাফসীরে তাওযীহুল কুরআন 

বইয়ের নাম: তাফসীরে তাওযীহুল কুরআন 

লেখক: মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী

অনুবাদক: মাওলানা আবুল বাশার মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম

প্রকাশনী: মাকতাবাতুল আশরাফ

প্রাপ্তিস্থান: মাকতাবাতুল আশরাফ, ইসলামী টাওয়ার (দোকান নম্বর ০৫), ১১ বাংলাবাজার, ঢাকা: ১১০০

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

কুরআনের তাফসীর অধ্যয়ন করা প্রতিটি মুসলমানের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য সুখবর হল, সহজ-সরল ভাষায় প্রথম সংক্ষিপ্ত অথচ জ্ঞানগর্ভ একটি তাফসীর উর্দু ভাষা থেকে তরজমা হয়েছে। মূল গ্রন্থটির নাম 'আসান তরজমায়ে কুরআন'। বাংলায় তাফসীরে তাওযীহুল কুরআন।

আত্মার পরিচর্যা

বইয়ের নাম: আত্মার পরিচর্যা

লেখক: মাওলানা যুলফিকার আহমাদ 

অনুবাদক: মাওলানা এনামুল হক নূর

প্রকাশনী: থানভী লাইব্রেরী

প্রাপ্তিস্থান: ৫৯ চক সার্কুলার রোড, ৫০ বাংলাবাজার

 
অন-লাইন:
খিদমাহশপ
 
 
পরিচিতি:
 

মানুষের আত্মার সংশোধনই আসল। ইসলামের মূল শিক্ষাসমূহের অন্যতম হল আত্মার সংশোধন ও উন্নতি। শায়খ যুলফিকার আহমাদ বর্তমান সময়কার একজন নিবেদিত আলেম। উনার পরিশ্রম ও সফরের মূল কেন্দ্র মুসলমানদের আত্মার সংশোধন ও উন্নতি নিয়ে। বিভিন্ন চিত্তাকর্ষক ঘটনা পরিবেশন করে কুরআন ও হাদীসের আলোকে তিনি লেকচার দেন এবং উপদেশ প্রদান করেন। সেগুলোরই একটি ক্ষুদ্র কিন্তু চমৎকার সংকলন এই আত্মার পরিচর্যা বইটি। পড়লে আমলে উৎসাহ খুব বাড়রে ইনশাআল্লাহ।

পরকালের সম্বল

বইয়ের নাম: পরকালের সম্বল 

লেখক: ইব্‌নুল কাইয়্যিম জাওযী

অনুবাদক: মাওলানা মো: হাসান জুনাইদ

প্রকাশনী: এমদাদিয়া লাইব্রেরী

প্রাপ্তিস্থান: চক বাজার, ঢাকা

 
অন-লাইন:
খিদমাহশপ
 
 
পরিচিতি:
 

গুনাহ কী? গুনাহের ফলাফল কী? গুনাহের প্রতিকার কী? কোন্‌ নবীর উম্মত কোন্‌ গুনাহের কারণে কী শাস্তি পেয়েছিল? নবীগণের দুআ কী ছিল? আল্লাহ তাআলার সম্পর্ক স্থাপনের মূল বিষয় বা উপায় কী?

এই প্রশ্নগুলোর উত্তর জানতে চান? কুরআন ও হাদীসের আলোকে এ বইয়ে এগুলোই আলোচিত হয়েছে।

মরণের পরে কী হবে?

বইয়ের নাম: মরণের পরে কী হবে?

লেখক: মাওলানা আশেকে এলাহী

প্রকাশনী: নাদিয়াতুল কুরআন

প্রাপ্তিস্থান: ইসলামী টাওয়ার ১১/১ বাংলাবাজার

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

প্রত্যকটি মুসলমানের পরকালীন জীবনের ওপর একশভাগ ঈমান আছে। তবে পার্থিব জীবনের বস্তু এবং ভোগের মোহে পড়ে আমরা অনেক সময় আখেরাতকে ভুলে যাই। অথচ পবিত্র কুরআন এবং হাদীসে খুলে খুলে মৃত্যু ও তার পরবর্তী অবস্থা সম্পর্কে বর্ণনা করা হয়েছে। তারই যদি একটি ঝলক কোন মুসলমান দেখতে চায় মাওলানা আশেকে এলাহী রহ.-এর মরণের পরে কী হবে বইটি পড়া উচিত।

মৃত্যু, কবর, হাশর, মীযান, পুলসীরাত, জান্নাত ও জাহান্নামের কুরআন ও হাদীসভিত্তিক বর্ণনা দিয়ে বইটি সমৃদ্ধ। পড়লে একদিকে ঈমান বৃদ্ধি পাবে, নেক কাজ করার উৎসাহ বাড়বে এবং জীবনে বড় রকম সংশোধন আসবে ইনশাআল্লাহ।

পারিবারিক কলহ ও তা নিরসনের উপায়

বইয়ের নাম: পারিবারিক কলহ ও তা নিরসনের উপায়

লেখক: মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী

অনুবাদক: মাওলানা আবুল বাশার মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম

প্রকাশনায়: মাকতাবাতুল আশরাফ

প্রাপ্তিস্থান: মাকতাবাতুল আশরাফ, ইসলামী টাওয়ার (দোকান নম্বর ০৫), ১১ বাংলাবাজার, ঢাকা: ১১০০

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

পারিবারিক কলহ বর্তমান সমাজে একটি ব্যপক এবং জটিল বিষয়। সব সমস্যার সমাধানে আল্লাহ তাআলার দেয়া বিধান চূড়ান্ত। মুফতী তাকী উসমানী বিভিন্ন সময় পারিবারিক কলহ নিরসনের ইসলামের দিক নির্দেশনা সম্পের্ক বলেছেন ও  লিখেছেন। উনার স্নেহের ভাতিজা জনাব সাঊদ উসমানী চাচার লেখার ও বক্তৃতাকে সংক্ষিপ্ত পুস্তিকাকারে সংগ্রহ করে প্রকাশ করেছেন এটি তারই একটি। তালীম (শিক্ষা দেয়া) ও তারবিয়াত (সংশোধন)-এর জন্য একশ পৃষ্ঠারও কম উপকারি একটি বই।

সুখময় জীবনের সন্ধানে

বইয়ের নাম: সুখময় জীবনের সন্ধানে

লেখক: ড. শায়খ মুহাম্মাদ বিন আব্দুর রহমান আরিফী

প্রকাশনায়: আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলূম মাদানীনগর

প্রাপ্তিস্থান: 

*মাকতাবাতুত তাকওয়া, ইসলামী টাওয়ার বাংলাবাজার, ঢাকা: ১১০০

*হরফ পাবলিকেশন্স, ইসলামী টাওয়ার বাংলাবাজার, ঢাকা: ১১০০

*মাকতাবাতুল হাসান, মাদারীনগর মাদরাসা রোড, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

আরব জগতের খ্যাতনামা দাঈ ড. শায়খ মুহাম্মাদ বিন আব্দুর রহমান আরিফী এর অত্যন্ত জনপ্রিয় গ্রন্থ ইসতামতা' বিহায়াতিক। তারই সহজ-সরল বাংলা অনুবাদ করেছেন ১৪৩৪-৩৫ হিজরী ২০১৩-১৪ ঈসায়ী সনের দাওরাতুল হাদীস (মাস্টার্স) সমাপনী ছাত্রবৃন্দ, আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলূম মাদানীনগর। 

একজন মুসলমানের জীবন হবে ঈমানদীপ্ত - কুরআন ও সুন্নাহর আলোকে সুদৃঢ় ও ভারসাম্যপূর্ণ। বাস্তব জীবনে যারা ইসলামকে প্রয়োগ করে থাকেন তাদের কাছে বিষয়টি আদৌ নতুন নয়। কিন্তু আমরা অধিকাংশ মুসলমান এ কথাটি ভুলে গিয়েছি এবং ব্যক্তি, পারিবারিক ও সমাজ জীবনে ইসলাম অনুকরণ ও অনুসরণ থেকে বহু দূরে সরে গিয়েছি। অথচ পার্থিব ও পরকালীন জীবনকে সুন্দর ও সাফল্যমন্ডিত জন্যেই আমাদেরকে ইসলাম দেয়া হয়েছে। 

কিভাবে সেই সফল ও শান্তিময় জীবন আমরা আবার ফিরিয়ে আনব? এই প্রশ্নের উত্তরটিই পাবেন এই বইয়ে। 

ঈমান ও বস্তুবাদের সংঘাত

বইয়ের নাম: ঈমান ও বস্তুবাদের সংঘাত

লেখক: সাইয়েদ আবুল হাসান আলী নদভী

প্রকাশনী: রাহনুমা

প্রাপ্তিস্থান: ইসলামি টাওয়ার, ৩২/এ, আনডারগ্রাউন্ড, বাংলা বাজার, ঢাকা

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

কুরআনের আরেক নাম হল আল ফুরকান - সত্য-মিথ্যাপ্রভেদকারী। আল্লাহ তাআলা কুরআন মাজীদে বিভিন্ন ঘটনার মাধ্যমেও সত্য এবং মিথ্যাকে পৃথক করেছেন। এঁর মাধ্যমে ঈমানের বিপরীতে সবকিছুর মধ্যে পরিস্কার পাথর্ক্য ফুটে উঠেছে। কুরআনের সে ঘটনাগুলো সব মুসলমানদের সাধ্য অনুযায়ী অধ্যায়ন করা উচিত। তাতে মিথ্যা, বাতিল এবং অন্যায়-অনাচার সম্পর্কে স্পষ্ট জ্ঞান লাভ করা যায়, এবং এটা খুব জরুরী।

সাইয়েদ আবুল হাসান আলী নদভী রহ.-এর নাম আরব ও আযম সব অঞ্চলের মুসলমানগণ জানেন। উনি উপরোক্ত বিষয়টি বিস্ময়করভাবে 'আস-সিরউ বাইনাল ঈমানি ওয়াল মাদ্দিয়াত' লেখটিতে তুলে ধরেছেন। বইটির অনুবাদক নিজে লিখেছেন "..অসাধারণ তাত্ত্বিক ও দার্শনিক আলোচনায় গ্রন্থটি রচনা করেছেন।"

বইটি না পড়লে বোঝা যাবে না কী জ্ঞান থেকে আমরা বঞ্চিত হলাম।

আল-আদাবুল মুফরাদ

বইয়ের নাম: আল-আদাবুল মুফরাদ (অনন্য শিষ্টাচার)

লেখক: ইমাম আবূ আবদুল্লাহ্‌ মুহাম্মাদ ইবনে ইসমাঈল বুখারী رحمة الله عليه

প্রকাশনী: ইসলামিক ফাউন্ডেশন

প্রাপ্তিস্থান: 

ইসলামিক ফাউন্ডেশন, বায়তুল মুকাররাম, ঢাকা

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

৬৪৫টি অনুচ্ছেদে সমাপ্ত আদব-আখলাক (সচ্চরিত্র) গঠনের বিস্ময়কর একটি হাদীসের সংকলন। হাদীস গ্রন্থটিতে ১৩৩৯টি হাদীস বর্ণিত হয়েছে। আদব ও নৈতিকতা শিক্ষার ওপর সম্ভবত পবিত্র হাদীসের এত বড় সংকলন আর নেই। যেহেতু ইমাম বুখারী رحمة الله عليه-এর গ্রন্থ - তদুপরি রাসূলে কারীম ﷺ-এর হাদীস, তাই অধিক পরিচিতি নিষ্প্রয়োজন।

উসওয়ায়ে রাসূলে আকরাম ﷺ

বইয়ের নাম:  উসওয়ায়ে রাসূলে আকরাম ﷺ

লেখক: আরেফ বিল্লাহ ডা. আবদুল হাই রহ.

প্রকাশনী: মোহাম্মদী লাইব্রেরী

প্রাপ্তিস্থান: 

ইসলামি টাওয়ার (আন্ডার গ্রাউন্ড)

১১ বাংলা বাজার, ঢাকা ১১০০

অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

রাসূলে আকরাম ﷺ -এর পবিত্র সুন্নত সমূহ অনুকরণ ও অনুসরণের জন্য একটি অন্যন্ন বই। এই বইটিকে মুফতী তাকী উসমানী সুন্নত পালনের ডায়েরী বলে আখ্যা দিয়েছেন। বইটি বহু ভাষায় অনূদিত হয়েছে। প্রতিটি মুসলমানের জন্য ১১টি অধ্যায় বিভক্ত প্রায় ৪৩০ পৃষ্ঠার বইটিতে প্রাত্যহিক বিভিন্ন সুন্নত এবং হাদীসে বর্ণিত দুআ সমূহ, সংশ্লিষ্ট হাদীস সুস্পষ্টভাবে বর্ণিত হয়েছে। রাসূলে আকরাম ﷺ-এর সুন্নতের অনুসরণ ও অনুকরণ অতীব জরুরী। তাই এই বইটি সংগ্রহে রেখে সুন্নতের উপর আমল অভ্যাস করা অত্যন্ত জরুরী। 
সীরাতুল মুস্তফা ﷺ

বইয়ের নাম:  সীরাতুল মুস্তফা ﷺ

লেখক: ইদ্রীস কান্ধলভী রাহমাতুল্লাহি আলাইহি 

প্রকাশনী: ইসলামিক ফাউন্ডেশন, মদীনা পাবলিকেশন্স

প্রাপ্তিস্থান: 

ইসলামিক ফাউন্ডেশন, বায়তুল মুকাররাম, ঢাকা
মদীনা পাবলিকেশন্স, ৩৮/২ বাংলাবাজার, ঢাকা
অন-লাইন:
খিদমাহশপ

পরিচিতি:

যেহেতু রাসূলে আকরাম ﷺ এর অনুকরণ ও অনুসরণ করা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য ফরয, তাই রাসূলে আকরাম ﷺ এর সীরাত অধ্যায়ন প্রত্যেক মুসলমানদের জন্য জরুরী।

এই উপমহাদেশের বরেণ্য আলেম শায়খুল হাদীস ইদ্রীস কান্ধলভী রাহমাতুল্লাহি আলাইহি সম্পাদিত সীরাতুল মুস্তফা ﷺ একটি নির্ভরযোগ্য সীরাত।

তিন খন্ডে সমাপ্ত বইটি একজন সত্যান্বেষী ও আগ্রহী ঈমানদারকে একদিকে রাসূলে আকরাম ﷺ এর অনুকরণ ও অনুসরণে উদ্বুদ্ধ করবে, অন্যদিকে তার অন্তরে প্রিয় নবীজি ﷺ এর প্রকৃত ভালবাসা বৃদ্ধি করবে ইনশাআল্লাহ।

পবিত্র জীবনের জন্ম থেকে নিয়ে রাসূল ﷺ এর ইহ-জগত থেকে বিদায়ের পর্ব পর্যন্ত সীরাতের মাঝে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলীর ধারাবাহিক বর্ণনা, বিশ্লেষণে বইটি সমৃদ্ধ।

বইটি বাংলায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অনুবাদ পাওয়া যায়।
এছাড়া, মদীনা পাবলিকেশন্স্-এর অনুবাদও পাওয়া যায়।

ঈমান সবার আগে

বইয়ের নাম: ঈমান সবার আগে 

লেখক: মাওলানা আবদুল মালেক [দা. বা.]

প্রকাশনী: মাকতাবাতুল আশরাফ

প্রাপ্তিস্থান: মাকতাবাতুল আশরাফ, ইসলামী টাওয়ার (দোকান নম্বর ০৫), ১১ বাংলাবাজার, ঢাকা: ১১০০

পরিচিতি:

ঈমান তো সবার আগেই! কোন্ মুসলমান তা অস্বীকার করতে পারে? 

শায়খ আবদুল মালেক-এর অত্যন্ত সময়োপযোগী একটি পুস্তিকা ঈমান সবার আগে। এটা প্রত্যেক মুসলমানের গুরুত্ব সহকারে পড়া উচিত। প্রথমে জানা ও বোঝা উচিত ঈমান কী, কেন ও কিভাবে। যে ঈমান আমার সব ফরযের বড় ফরয, সব নেক আমল করার পূর্বশর্ত, তার মূল্য ও গুরুত্ব জানার সাথে সাথে নিজ জীবনে খাঁটি ঈমান বাস্তবায়নে আমাদের উৎসর্গিত হওয়া উচিত। এ পুস্তিকাটি অমূল্য ঈমানকে জানা ও বাস্তবায়নেরই পথনির্দেশ।