পবিত্র জীবনী

সাইয়্যেদিনা হযরত মুহাম্মদ  ﷺ

সাইয়্যেদিনা হযরত মুহাম্মদ ﷺ

সাইয়্যেদিনা হযরত মুহাম্মাদ ﷺ (পরলোকগমন: ১১ হিজরী ॥ ৬৩৩ খৃস্টাব্দ) হযরত আদম আলাইহি ওয়াসাল্লাম যখন মাটি ও পানির মাঝে জন্ম-এর প্রক্রিয়ায় তখনও তিনি নবী। (প্রিয় পাঠক!) তুমি যদি কোন দিন উৎসবে মেতে উঠতে চাও তবে তা যেন হয় নবীজীর কোন আনন্দ-এর দিনে। তাঁর জীবনচরিত লিখে লিখে কলম শুকিয়ে গেছে। কলম-এর যত কীর্তি তাঁর সীরাত-ই স-এরা। তারপরও সত্য-এর নিক্তি-সাগরে এক ফোঁটাও মেশাতে পারেনি এই কলম। প্রশংসা করে ইতিহাস ধন্য করেন...
সাইয়্যেদিনা দাঊদ আলাইহিস সালাম

সাইয়্যেদিনা দাঊদ আলাইহিস সালাম

আল্লাহ্ তা'আলা তাঁকে একাধারে নবুওতী ও রাজত্ব দান করেছিলেন। তিনি তাঁকে দিয়েছিলেন হেকমত-প্রজ্ঞা ও বাগ্মিতা। যে নবীর সাথে তাসবীহ পাঠ করতো পক্ষীকুল ও পর্বতশ্রেণি। মানবকুলের মাঝে তিনি ছিলেন সবচেয়ে সুন্দর কণ্ঠের অধিকারী। বনী ইসরাঈল সম্প্রদায়ের মাঝে মহান আল্লাহ্ তাঁকে মনোনীত করেছিলেন উদ্ধত জালিম জালূতকে পরাস্ত করার জন্য। তিনি এই জালিমের জীবন লীলা সাঙ্গ করিয়েছিলেন হযরত দাঊদ আ.-এর হাতে। তিনি অকুতোভয় অসম সাহসী বীর। রণক্ষেত্র থেকে ...
সাইয়্যেদিনা হযরত ঈসা আলাইহিস সালাম

সাইয়্যেদিনা হযরত ঈসা আলাইহিস সালাম

জীবনের প্রারম্ভে যিনি কোন আওয়াজ করেননি। নবজাতকের সূচনাকালের কান্নাকাটি তাঁকে স্পর্শ করেনি। দোলনা থেকে যে নবী কথা বলেছিলেন। তিনিই প্রথম নবী যিনি আকাশে জীবিত আরোহণ করেছেন। পৃথিবীজুড়ে তিনি যুহদের ফেরি করে পর্যটন করেছেন। হৃদয়ের মাঠে বপন করেছেন তাকওয়া ও পরহেযগারি। কল্যাণের বাণী ছড়িয়েছেন। তিনি মারইয়াম তনয় ঈসা। আল্লাহ্’র বান্দা ও তাঁর রাসূল। মারইয়ামের প্রতি তাঁর প্রেরিত বাণীর কল্যাণে যার আগমন। তিনি ছিলেন মা...
আবূ বকর ছিদ্দীক রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ১৩ হিজরী : ৬৩৪ খৃস্টাব্দ)

আবূ বকর ছিদ্দীক রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ১৩ হিজরী : ৬৩৪ খৃস্টাব্দ)

মহানবী ﷺ-এর পর তিনিই উম্মতের মহাদরদি ব্যক্তি। নিয়তি-ধ্বনিত ব্যক্তি। ইরানি ও রোম সাম্রাজ্য পতনের সূচনা ছিল তাঁর খিলাফতকাল। তাঁর শাসনকাল ছিল বাতিল রাজত্ব অবসানের গৌরচন্দ্রিকা ও পূর্বাভাস। নেতৃত্বের জন্য তিনি লালায়িত ছিলেন না। নেতৃত্বই ধেয়ে এসেছিল তাঁর কাছে। তিনি ঈমানের পাঠশালা। জান্নাতী দূতের হৃদয় আর কুদরতী মানবের মুখের মহিমা তাঁর দেহমনে। সাক্ষাতে পাবে সুরভিত ঘ্রাণ। হৃদয়ে দুনিয়ার মোহ জীর্ণ হয়েছে তাঁর মনে।...
উমর ইবনে খাত্তাব রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ২৩ হিজরী : ৬৪৪ খৃস্টাব্দ)

উমর ইবনে খাত্তাব রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ২৩ হিজরী : ৬৪৪ খৃস্টাব্দ)

তাঁর র্দোরা ছিল রাজা-বাদশাদের তরবারির চেয়ে অধিক ভয়ানক। মানবতার সেরা দান। ইসলামের দীক্ষা ও শিষ্টাচারে লালিত। নবী ও রাসূলদের পর তিনি সর্বাধিক ন্যায়পরায়ণ। মানুষ ক্ষুধার্ত হলে তিনিই প্রথম ক্ষুধার্ত ব্যক্তি। প্রজাকুল পরিতৃপ্ত হলে তিনিই সর্বশেষ পরিতৃপ্ত ব্যক্তি। ইতিহাস তাঁর দরবারে তথ্য সরবরাহের লক্ষ্যে দীর্ঘ সময় কাটিয়েছে। বিশাল সময় ধরে বিবরণ তুলে ধরছে তাঁর যুহদ ও ন্যায়-ইনসাফের কথা। পৃথিবীকে নিয়ে এসেছে ওহীর যুগ...
উসমান ইবনে আফফান রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৫ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

উসমান ইবনে আফফান রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৩৫ হিজরী : ৬৫৬ খৃস্টাব্দ)

যাঁকে দেখে ফেরেশতা পর্যন্ত লজ্জিত। লাজুকতা যাঁর ভূষণ। দু’বার জান্নাত ক্রয় করেছিলেন। তিনি ছাড়া আর কেউ কোন নবীর দু’জন দুহিতা বিয়ে করেননি। হযরত লূত আলাইহিস সালামের পর তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি সপরিবারে হিজরতের মিশন সাফল্যের সাথে সাধন করেছিলেন। ইতিহাসে কীর্তিমান হওয়া বা কারও কৃতজ্ঞতা লাভ করা যাঁর কোন প্রত্যাশা ছিল না। তিনি যুন্নুরাঈন, দুই জ্যোতির অধিকারী হযরত উসমান ইবনে আফফান। আবূ আব্দুল্লাহ্ কুরাইশী উমাবী মক্...
আলী ইবনে আবী তালিব রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৪০ হিজরী : ৬৬১ খৃস্টাব্দ)

আলী ইবনে আবী তালিব রাযিআল্লাহু আনহু (মৃ. ৪০ হিজরী : ৬৬১ খৃস্টাব্দ)

অশ্বারোহী মুজাহিদ। ইসলামের আলোকিত উপহার। ইতিহাসের সেরা জন্ম। ঈমানের শয্যায় বিচরণকারী এক ব্যক্তিত্ব। নবীজীর সাথে তাঁর হৃদ্যতা ছিল মূসা ও হারূনের হৃদ্যতা। ইসলামের পাঠশালায় তিনিই প্রথম ছাত্র। ছেলেবেলায় খেয়েছিলেন ঈমানের সমীরণ। তাজা ও সজীব ওহীর সৌরভ গ্রহণ করেছিলেন তৃপ্তি মিটিয়ে। নবী-রাসূলদের চরিত্রের ন্যায় তাঁর আখলাক-চরিত্র ছিল। তিনি হলেন আলী ইবনে আলী তালিব। নবী ﷺ-এর চাচাতো ভাই ও জামাতা। চতুর্থ খলীফা রাশেদ। নবুওতী আ...
উমর ইবনে আব্দুল আযীয রহমাতুল্লাহি আলাইহি (মৃ. ১০১ হিজরী : ৭২০ খৃস্টাব্দ)

উমর ইবনে আব্দুল আযীয রহমাতুল্লাহি আলাইহি (মৃ. ১০১ হিজরী : ৭২০ খৃস্টাব্দ)

পঞ্চম খলীফা রাশেদ। নবুওতের ধারায় প্রবর্তিত রাষ্ট্রশাসনের পঞ্চম শাসক। যুহদ ও দুনিয়া বিমুখতার সুতোয় তৈরী করেছিলেন পরিহিত কাপড়। যা অন্য কেউ পরিধান করেনি। চাটাইয়ের তখতে বসে দেশ শাসন করেছিলেন। ইতিহাসকে রাজত্বের ছিদ্রপথে না গলিয়ে যুহদ-অনাড়ম্বর আর ন্যায়-ইনসাফের পথে পরিচালিত করেছিলেন। ন্যায় ও ইনসাফের বাতি দিয়ে জুলুমের অন্ধকার তিরোহিত করেছিলেন। কোন দিন কল্পনাও করেননি যে, একদিন কলম তাঁর সীরাত ও কাহিনী ইতিহাসের প...

 

১              ১০ ১১ ১২ ১৩

.