দোষ-গুণ কার কোনটি দেখব

মানুষের খারাপটাই সাধারণত আমাদের চোখে বেশি পড়ে। ভাল গুণ সহজে আমাদের দৃষ্টি কাড়ে না। কারো দোষ যদি চোখে পড়ে যায় তাহলে অবশ্যই এই বিশ্বাস রাখা উচিত যে, তার মাঝে বহু ভাল গুণ আছে। মানুষ তো আর ফেরেশতা নয়, দোষ গুণ মিলেই মানুষ মানুষ হয়। আমাকে অন্যের ভাল গুণগুলো খুঁজে বের করতে হবে। এটাই স্বাভাবিক যে, অন্যের সবকিছু আমার পছন্দ হবে না। আমার সবকিছুও তো সবার পছন্দ হবে না। এক্ষেত্রে ছাড় দেওয়ার মানসিকতা থাকতে হবে।

এ কথা সত্য যে, যারা আমার উপরের পদে আছে তার বা তাদের দোষটা আমার দ্রুত ধরা পড়বে। মনে রাখতে হবে, আমার নীচে যারা আছে তাদের সামনে কিন্তু আমার দোষটাই সবার আগে ধরা পড়ে। কোন বৈঠক/মজলিসে যদি কারো দোষ-ত্রুটি নিয়ে আলোচনা শুরু হয় তাহলে সে আলোচনার মোড় পরিবর্তন করে দেওয়া উচিত। কেননা এগুলো মনকে কলুষিত করে দেয়, মেজাজকে বিস্বাদময় করে তুলে এবং দ্বায়িত্ব-কর্তব্য পালনে ব্যাঘাত সৃষ্টি করে। তাই অন্যের গুণটাই শুধু দেখা উচিত এবং নিজের মধ্যে যে খারাবিগুলো আছে সেগুলোর সংশোধনের চিন্তা থাকা উচিত।

শায়খ আতাউর রাহমান হেলাল, শায়খ মুজাহিদ হুসাইন ইয়াসিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *